[মাহমুদুল হাসান] সাপাহারে সহকর্মীসহ কর্মস্থলের মানুষের কাছ থেকে চোখের জলে বিদায় নিয়েছেন ইউএনও কল্যাণ চৌধুরী   বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বিদায় সংবর্ধনায় অনেকেই তার সম্পর্কে বলতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

নবাগত ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সোহরাব হোসেন, থানা অফিসার ইনচার্জ তারিকুর রহমান, সদরহাসপাতাল কর্মকর্তা রুহুল আমিন, কৃষি কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান, অফিসার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, উপজেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ।

এছাড়া সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন ফুল দিয়ে তাকে বিদায় জানিয়েছেন।

বক্তাবলী সাপাহার খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাউছার উল মানিক বলেন, করোনা সংকটে এই সময়ে লকডাউন নিশ্চিত, খাদ্য সরবরাহ, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করণ সহ পরিস্থিতি মোকাবেলায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন এই ইউএনও কল্যাণ চৌধুরী দিন-রাত কাজ করে গেছেন।

সহকারী কমিশনার ভূমি সোহরাব হোসেন বলেন, ইউএনও কল্যাণ চৌধুরী ছিলেন, একজন সৃজনশীল ও মানবিক ইউএনও। করোনা সংকটে মানুষের পাশে কাজ করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু তিনি কাজ থেকে পিছু পা হননি। করোনা রোগীর খাবার ও অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে বাসাবাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজান হোসেন মন্ডল বলেন, মানবিক, সৎ ও সাহসী মানুষ কল্যাণ চৌধুরী। তিনি সততা ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে গেছেন। তিনি যেখানেই যাবেন সেখানেই তার যোগ্যতা ও মেধা দিয়ে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করবেন।

ইউএনও কল্যাণ চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন, “যেখানে যতটুকু, চেষ্টা করেছি কাজ করার জন্য। আপনাদের সকলের টিম ওয়ার্ক, ভালোবাসা ও সহযোগিতা পেয়েছি বলেই কাজ করতে পেরেছি।”

এর আগে ডিসি অফিসের ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করে বিদায় নিলেও এত খারাপ লাগেনি ইউএনও হিসেবে বিদায় বেলায় যতটুকু খারাপ লাগছে, বলেন তিনি।

“আপনাদের ভালোবাসা ও সহযোগিতার কথা কখনও ভুলব না। সারাজীবন আপনাদের মনে থাকবে। এই সময়ে হয়ত আরও অনেক কাজ করতে পারতাম, যেগুলো করতে পারিনি সে কাজগুলো নবাগত ইউএনও মহোদয় করবেন।”

কাজ করতে গিয়ে ভুল-ত্রুটি হলে সেগুলোর জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি।

“আপনাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। ভালো যতটুকু কাজ করতে পেরেছি সেগুলোর কৃতিত্ব আপনাদের। আর ভুল ও ব্যর্থতার সকল দায় ভার আমার।”

তিনি দায়িত্ব পালনকালে সাহসিকতা ও বুদ্ধিমত্তা দিয়ে মানুষের জন্য কাজ করছেন। তিনি যেখানে থাকবেন সফলভাবে দায়িত্ব পালন করবেন।

image_pdfimage_print