ভারতে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ২ লাখ ৮২ হাজার ৮৩৩ জনে পৌঁছেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে প্রকাশ, গতকাল (সোমবার) সকাল ৮ টা থেকে আজ (মঙ্গলবার) সকাল ৮ টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৩ লাখ ৫৭ হাজার ২২৯ টি নয়া সংক্রমণ এবং একইসময়ে ৩,৪৪৯ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

সরকারি সূত্রে প্রকাশ, দেশে বর্তমানে ৩৪ লাখ ৪৭ হাজার ১৩৩ জন সক্রিয় করোনা রোগী হাসপাতাল অথবা হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন। এ পর্যন্ত মোট মারা গেছেন ২ লাখ ২২ হাজার ৪০৮ জন।

চলতি মে মাসের প্রথম ৪ দিনেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। ১ মে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪ লাখ ১ হাজার ৯৯৩। ২ মে আক্রান্ত হন ৩ লাখ ৯২ হাজার ৪৮৮ জন। ৩ মে ওই সংখ্যা ছিল ৩ লাখ ৬৮ হাজার ১৪৭। আজ ৪ মে ৩ লাখ ৫৭ হাজার ২২৯ টি নয়া সংক্রমণ হয়েছে। অর্থাৎ মাত্র ৪ দিনেই প্রায় ১৫ লাখ ২০ হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে, গত এপ্রিলে ৬৬ লাখের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে প্রকাশ, ভারতে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৬৬ লাখ ১৩ হাজার ২৯২ জন সুস্থ হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ২০ হাজার ২৮৯ জন।

গত বছর ৭ আগস্ট করোনা রোগীর সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়িয়েছিল। ২৩ আগস্ট ৩০ লাখ, ৫ সেপ্টেম্বর ৪০ লাখ, ১৬ সেপ্টেম্বর করোনা রোগীর সংখ্যা ৫০ লাখ ছাড়িয়েছিল।

এরপরে ২৮ সেপ্টেম্বর করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৬০ লাখ, ১১ অক্টোবর ৭০ লাখ, ২৯ অক্টোবর ৮০ লাখ, ২০ নভেম্বর ৯০ লাখ, ১৯ ডিসেম্বর ১ কোটি এবং ১৯ এপ্রিল আক্রান্তের বেড়ে দেড় কোটির বেশি হয়েছিল। এবার মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়িয়ে গেল।

 

 

 

 

পার্সটুডে

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print