বলিউডের নোরা ফাতেহি কে আমরা প্রত্যেকেই চিনি, নোরা এই মুহূর্তে বলিউডে অন্যতম একজন তারকা। আইটেম ড্যান্সে নোরাকে টক্কর দেওয়া একপ্রকার অসম্ভব। বি-টাউনের নিজের পাকাপাকি জায়গা তৈরি করে ফেলেছেন মরক্কোর এই সুন্দরী। তবে প্রথম থেকে রাস্তাটা এতটা সুগম ছিল না। অনেকটা সংগ্রাম করেই আজকের এই জায়গা তৈরি করেছেন নোরা, আর সেই কথা তার মুখেই উঠে এসেছিল একবার।

একের পর এক ভিডিও অ্যালবাম এবং সিনেমার আইটেম সং’এ নিজের নাচের জাদুতে আগুন লাগাচ্ছেন নোরা ফাতেহি। কিছুদিন আগে তাকে দেখা গিয়েছে এক জনপ্রিয় ডান্স রিয়েলিটি শো-তে জার্জের ভূমিকায়। সাফল্যের চূড়ায় এই সময় দাঁড়িয়ে রয়েছেন নোরা, তবে তিনি জানালেন নিজের স্ট্রাগলিং এর সময়কার কথা।

নোরা আগাগোড়াই বলিউডের বাদশা শাহরুখ খানের ফ্যান ছিলেন, নিজেও কাজ করতে চেয়েছিলেন বলিউডের সিনেমায়, সেই কারণেই একরাশ স্বপ্ন নিয়ে সুদূর কানাডা থেকে পাড়ি দিয়েছিলেন ভারতের উদ্দেশ্যে। তবে মানুষ যেমন টা ভাবে তেমন টা হয় কোথায়! আর এয়ারপোর্টে থেকে বেরিয়েই নোরা বুঝে গিয়েছিলেন তার পথ অতটা সুগম নয়। সেই মুহূর্তে নোরা জানতেন না হিন্দি বলতে, তাই প্রথমেই তিনি শিখতে শুরু করেন হিন্দি ভাষা।https://www.instagram.com/tv/CLqmJyTJ7YH/?utm_source=ig_embed

একের পর এক অডিশন দিতে শুরু করেন নোরা। অডিশনে হিন্দি বলতে গিয়ে তাকে বহু অপমানের শিকার হতে হয়েছিল বারবার। সেই সময় নোরা জেনে গিয়েছিলেন ফিল্মি জগতে নিজের পরিচিতি স্থাপন করা কতটা কঠিন, কারণ ৫০০ জনের অডিশনে একজন সিলেক্ট হওয়া মুখের কথা ছিলো না। এরই মাঝে অডিশন দিতে গিয়ে চুরি হয়ে যায় নোরার পাসপোর্টও। একসময় এক ইন্টারভিউ তে নিজের জীবনের এইসমস্ত ঘটনা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন তিনি। তবে অবশেষে নিজের জেদ এবং পরিশ্রমের দ্বারা স্বপ্ন কে সত্যি করতে পেরেছে নোরা, এবং আজকে তিনি বলিউডের অতি পরিচিত একজন জনপ্রিয় তারকা হয়ে উঠেছেন।

 

 

 

 

সংবাদ সফর

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

 

image_pdfimage_print