সারাদিন মোবাইল ঘাঁটেন? অজান্তেই মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে আপনার যৌনজীবন!

আপনার যৌনজীবনে প্রভাব ফেলতে পারে আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনটি! শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই দাবি করছে একদল গবেষক।

সম্প্রতি একটি গবেষণায় উঠে আসছে মোবাইল ফোন দেখার ধরণের ওপর নির্ভর করছে আপনার যৌন জীবন‌। এমনকী আপনার উচ্চতাও নাকি নির্ভর করে আপনার ফোন দেখার কায়দার উপরেই। আপনি আপনার মোবাইল বা অন্যান্য ডিভাইসগুলি কী ভাবে দেখেন তার উপরেই নির্ভর করে যৌনজীবন ও উচ্চতা, অর্থাৎ কীভাবে ঘাড় বেঁকিয়ে রাখছেন সেটাই ঠিক করে এই দু’টি বিষয়! আর এর গুরুতর প্রভাব পড়ছে আপনার যৌনজীবনে। পাশাপাশি জন্ম নিচ্ছে নানান শারীরিক অসুস্থতাও।

কী কী ক্ষতি হতে পারে?

১) ল্যাপটপ বা ডেস্কটপের পরির্বতে বেড়েছে মোবাইলের ব্যবহার পাশাপাশি এই বিষয়টির সঙ্গে পাল্লা দিয়েই বেড়েছে ঘাড় বাঁকিয়ে রাখার ধরণও আর তাতেই জাঁকিয়ে বসেছে বিপদ। গভীর প্রভাব ফেলছে আপনার যৌন জীবন ও উচ্চতার উপরে।

২) বিজ্ঞান বিষয়ক একটি জার্নাল ‘ক্লিনিকাল অ্যানাটমিতে’ প্রকাশিত হয়েছে একটি নয়া গবেষণা, সেখানেই বলা হয়েছে আরকাসস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ইলেক্ট্রনিক সরঞ্জাম ব্যবহারের সময় ঘাড় এবং মাথা বেঁকিয়ে রাখার নানা বিভঙ্গ নিয়ে কাজ করেছেন। সেখানেই ধরা পড়েছে এই বিষয়টি।

৩) মহিলারা এবং কম উচ্চতার ব্যক্তিরা পুরুষদের তুলনায় ভিন্নভাবে নিজেদের ঘাড় বেঁকিয়ে মোবাইল বা অন্য সামগ্রী ঘাঁটেন। যার ফলে মহিলাদের ঘাড়ে ও মাথায় ব্যথা হওয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কারণ।

৪) মোবাইল বা ট্যাবলেট ঘাঁটার সময় বেশ খানিকক্ষণ একইভাবে ঘাড় নিচু করে বা বেঁকিয়ে রাখার ফলে গলা ও মাথার সংযোগস্থলে, ঘাড়ে এবং কাঁধের অংশ অনেকাংশে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। দীর্ঘমেয়াদি ব্যথাও সৃষ্টি হয় এর ফলে।

 

 

 

 

 

জি নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো