786786ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় রাহুল গান্ধীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি সোমবার বিকেলে এক টুইটার বার্তায় রাহুলকে অভিনন্দন জানান। পরে রাহুল গান্ধীও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা বার্তায় মোদিকে ধন্যবাদ জানান।

সোমবার বিকেল ৪টায় সভাপতি হিসেবে রাহুলের নাম ঘোষণা করে অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটি (এআইসিসি)। আগামী ১৬ ডিসেম্বর তার মা সোনিয়া গান্ধীর কাছ থেকে সভাপতির দায়িত্ব বুঝে নেবেন ৪৭ বছর বয়সী এ রাজনীতিক।

এর আগে ১৯৯৮ সালের এপ্রিলে দলের সভাপতির দায়িত্ব পান সোনিয়া গান্ধী। তিনি এ পদে টানা ১৯ বছর বহাল আছেন।fbdfbdfদলের সভাপতি পদে রাহুলের অভিষেকের পথ নিশ্চিত করতে গত মাসে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বিশেষ বৈঠক ডেকেছিলেন সোনিয়া গান্ধী। সভাপতি পদের নির্বাচনের জন্য গত ১ ডিসেম্বর বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ তারিখ ছিল ৪ ডিসেম্বর। কিন্তু, রাহুল ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র জমা দেননি। প্রার্থীপদ প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল গতকাল (সোমবার)। আর কেউ প্রার্থী না হওয়ায় সোমবার বিকেল ৪টায় সভাপতি হিসেবে রাহুলের নাম ঘোষণা করল এআইসিসি। রাহুল সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর এআইসিসি সদর দফতরের বাইরে কংগ্রেস সমর্থকরা উল্লাস প্রকাশ করেন।bbbfgfকংগ্রেসের বিদায়ী সভাপতি সোনিয়া গান্ধী

১৯৯৮-এর এপ্রিলে সীতারাম কেশরীকে সরিয়ে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি সোনিয়া গান্ধীকে সভাপতি মনোনীত করে। তার পর থেকে তিনিই দলের সভাপতি। মাঝে ২০০০ সালে সভাপতি পদের জন্য কংগ্রেসে একবার নির্বাচন হয়। সে সময় সনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছিলেন জীতেন্দ্রপ্রসাদ। কিন্তু, জীতেন্দ্রপ্রসাদকে হারিয়ে ফের সভাপতি পদে নির্বাচিত হন সোনিয়া।তারপর থেকে এখনও পর্যন্ত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাপতি পদেই ছিলেন তিনি। এবার তার স্থলাভিষিক্ত হলেন ২০১৩ সাল থেকে দলের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করা রাহুল গান্ধী।

এর আগে গান্ধী-নেহরু পরিবারের পাঁচ সদস্য এই পদে থেকেছেন। তারা হলেন মতিলাল নেহরু, জওহরলাল নেহরু, ইন্দিরা গান্ধী, রাজীব গান্ধী ও সোনিয়া গান্ধী।  পার্সটুডে

উক্ত প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print