মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ইরানের বিরুদ্ধে তার সরকারের ভিত্তিহীন অভিযোগের পুনরাবৃত্তি করেছেন।তিনি গতকাল (শনিবার) আটলান্টিক কাউন্সিলে দেয়া বক্তব্যে ইরানকে ‘নাশকতামূলক’ তৎপরতায় জড়িত থাকার দায়ে অভিযুক্ত করেন।

পম্পেও দাবি করেন, পশ্চিম এশিয়ায় (মধ্যপ্রাচ্যে) অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির মূল হোতা ইরান। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো দাবি করেন, মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিতিশীলতার জন্য ফিলিস্তিন-ইসরাইল সংঘাত নয় বরং ইরানের হুমকি প্রধানত দায়ী।

পম্পেও এর আগেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সুর মিলিয়ে ইরানকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদে সমর্থন এবং মধ্যপ্রাচ্যসহ গোটা বিশ্বে ধ্বংসাত্মক তৎপরতা চালানোর দায়ে অভিযুক্ত করেছিলেন।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, আমেরিকা ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে গিয়ে তেহরানের ওপর ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের যে নীতি গ্রহণ করেছে দেশটির শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের এ ধরনের বক্তব্য সে নীতি বাস্তবায়নেরই অংশ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পার্সটুডে

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print