নারকীয়, অমানবিক নাকি ভয়ঙ্কর অসুস্থ মানসিকতা- সব বিশেষণই ছোট রাজস্থানের জয়পুরের গণধর্ষণের ঘটনায়! এক মারণ ভাইরাসে যখন তটস্থ গোটা বিশ্ব, যখন প্রতিনিয়ত বেঁচে থাকার লড়াই চালাচ্ছে গোটা দেশ, সেই পরিস্থিতিতেও এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করল একের পর এক যুবক। সেখানেই থেমে থাকেনি তারা। গোটা ঘটনা মোবাইলে ভিডিও করে রাখে, এরপর সেটা ভাইরাল করে দেওয়ার ভয় দেখানো হয়। কিশোরীকে ছেড়ে দেওয়ার আগে দেওয়ালে ঠুকে দেওয়া হয় মাথা। লকডাউনের মধ্যেও শিউরে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটল রাজস্থানের জয়পুরের একটি প্রত্যন্ত গ্রামে।

‘কেউ রেললাইনের ওপরে ঘুমিয়ে পড়লে কী করা যাবে!’, ঔরঙ্গাবাদের দুর্ঘটনার মামলা খারিজ শীর্ষ আদালতে
ঘটনাটি কয়েকদিন আগের। ১৩ মে ওই কিশোরীর পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

কিশোরীর বয়ান অনুযায়ী, ঘটনার দিন অদূরেই তার কাকুর বাড়ি যাচ্ছিল সে। পাড়ার সামনে থেকে কয়েকজন যুবক তাকে তুলে নিয়ে যায় একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে। সেখানে গণধর্ষণ করা হয় তাকে। ভিডিও করে রাখা হয় গোটা দৃশ্যের। কিশোরীকে ভয় দেখানোর অভিযোগ ওঠে। ‘ভয় পাই না তোমাদের, বলে দেবো সব্বাইকে’ কিশোরীর সাহস দেখে উল্টে ভয় পেয়ে যায় অভিযুক্তরাই। দেওয়ালে মাথা ঠুকে দেয় তার।

কিশোরী জ্ঞান হারায়। তার বয়ান অনুযায়ী, সে যখন চোখ খোলে, তখন দেখে স্থানীয় এক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বেডে শুয়ে আছে সে। সেখান থেকেই বাড়িতে খবর যায়। মনে করা হচ্ছে, কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে, এই ভেবে ভয়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা।

প্রাথমিক ধাক্কা সামলে ১৩ তারিখ থানায় অভিযোগ দায়ের করে পরিবার। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

জি নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print