প্রাকৃতিক নিয়মে ঝরণা পাহাড়ের বুক চিরে নেমে যায় নদীতে। আর নদী গিয়ে মেশে সাগরে। সৃষ্টির আদি থেকে এটাই প্রকৃতির অলিখিত নিয়ম। পানি সব সময় নিচের দিকে বইবে। সেই নিয়মও অবশেষে ভাঙল কালের খামখেয়ালিতে। গভীর সমুদ্রের বিশাল ঢেউ এক লাফে জড়িয়ে ধরল পাহাড়ের গলা! নোনা জলে ভিজিয়ে দিল কর্কশ, রুক্ষ পাহাড়ের চোখ-মুখ।

বিশ্বের এমন আশ্চর্য ঘটনার সাক্ষী ফারই আইল্যান্ড। এক পর্যটকের তোলা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এখানে সমুদ্র ফিরে আসছে পাহাড়ের টানে। পাথুরে বুকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এ দৃশ্যে দেখা যায়, সমুদ্র থেকে উঠে আসা পানির স্রোতধারা পাহাড়ের শরীর জড়িয়ে উঠে যাচ্ছে উপরের দিকে।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এ ভিডিও দেখে অনেকেই প্রশ্ন করেন ‘হঠাৎ এমন উল্টো নিয়ম কেন?’ তবে আবহাওয়াবিদেরা অন্যকোনো ব্যাখ্যাতেই জাননি। তাদের দাবি, পানির নিচে ঘূর্ণি তৈরি হওয়ায় বাতাসের টানে ঢেউ পরিণত হয় সর্পিলাকার স্তম্ভ বা টর্নেডোয়। ফলে সেই চাপেই পানি উঠে এসেছে পাহাড়ে।

আবহাওয়াবিদদের আরও দাবি, সবার চোখে যেটি পানির ফোয়ারার মতো দেখাচ্ছে আসলে তা টর্নেডোর ছোট সংস্করণ। তবে এটি পানির ওপর তৈরি হয় বাতাসের সাহায্যে। এ ঘটনা খুব অস্বাভাবিক কিছু নয়।

 

 

 

সময় নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print