ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত নোয়াখালীর উপকূলীয় এলাকা সুবর্ণচর এবং হাতিয়া উপজেলায় ত্রাণ সামগ্রী ও চিকিৎসা সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে সেনাবাহিনী। ত্রাণ সামগ্রী পেয়ে খুশী ক্ষতিগ্রস্তরা।

শুক্রবার (২২ মে) দিনব্যাপী কুমিল্লা সেনানিবাসের মেজর কামরুল আহসান এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ সামগ্রী ও চিকিৎসা সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন।

মেজর কামরুল আহসান বলেন, ঘূর্ণিঝড়ে জেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হাতিয়া উপজেলার নদী তীরবর্তী ইউনিয়ন বয়ারচর এলাকা এবং সুবর্ণচর উপজেলার চরক্লার্ক ও মোহাম্মদপুর ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ সকল দুর্গত লোকদের কথা মাথায় রেখে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য খাদ্য সামগ্রী, ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী নিয়ে শুক্রবার সকাল থেকে তাদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। বয়ারচরে ক্ষতিগ্রস্ত বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও মেরামত করে দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ঘূর্ণিঝড়ে পড়ে যাওয়া বেশ কয়েকটি ঘর সেনাবাহিনীর সহায়তায় মেরামত করে দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ক্যাপ্টেন আশরাফুল ও লেফটেন্যান্ট সাখাওয়াত।

 

 

 

 

 

 

 

সময় নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print