অবাক কাণ্ড! মর্গে উঠে বসল মৃত ব্যক্তি। চিকিৎসকদের গাফিলতির চূড়ান্ত নিদর্শন। রোগীকে মৃত বলে ঘোষণা করে দিয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু সেই রোগী হঠাৎ জেগে উঠল মর্গে। কেনিয়ার যুবক পিটার কিগেন। বয়স মাত্র ৩২। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করার পর তাঁর দেহ মর্গে রাখা হয়েছিল। তাঁর মৃতদেহ সমাহিত করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছিল। এমন সময় হঠাত্ উঠে বসলেন সেই যুবক। যন্ত্রণায় কঁকিয়ে উঠলেন। তাঁকে দেখে তো তখন মর্গে উপস্থিত সবার চোখ ছানাবড়া হয়ে গিয়েছিল।

ওই যুবকের ডান পায়ে ফুটো করছিলেন মর্গের কর্মীরা। সেই ফুটো দিয়ে ফরমালিন প্রবেশ করানোর চেষ্টা করছিলেন তাঁরা। তখনই যন্ত্রণায় কঁকিয়ে উঠলেন ওই যুবক। এর পরই তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসায় সাড়া দেন তিনি। ফিরে পান নতুন জীবন। কেরিচো কাউন্টিতে কাপকাটেট হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল পিটারকে। চিকিৎসকা একের পর এক পরীক্ষা নিরীক্ষার পরও তাঁর শরীরে প্রাণ খুঁজে পাননি। ফলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে দেন তাঁরা। পিটার কিগেনের দেহ রাখা হয় মর্গে। সেখানেই তাঁর শরীর থেকে রক্ত বের করার প্রক্রিয়া শুরু করবেন বলে ঠিক করেন কর্মীরা। শরীরে ভরা হত ফরমালিন।

 

 

 

 

জি নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print