অশ্লীল ইঙ্গিত ট্যাক্সি চালকের, তাড়া করে তাকে ধরলেন মিমি। কী বলা যায় এই ঘটনাকে? মহালয়ার আগেই দেবীর অসুর-দমনের ছোট সংস্করণ? অথবা শহরের রাস্তায় ফের বীরাঙ্গনা রূপে অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর আবির্ভাব? সোমবার রাতে বালিগঞ্জ ফাঁড়ির কাছে এই ঘটনাটি ঘটে। মিমি তখন জিম থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। তাঁর গাড়ির পাশ দিয়ে একটি ট্যাক্সি যাচ্ছিল। যেতে-যেতে ট্যাক্সিটির চালক চোখ দিয়ে মিমির প্রতি বাজে ইঙ্গিত করেন। প্রথমে মিমি বিষয়টাকে খুব একটা আমল দেন না। তাঁর গাড়ি এগিয়ে যায়। তখন ট্যাক্সিটি তাঁর গাড়িকে ওভারটেক করে এসে ফের মিমির প্রতি অত্যন্ত বাজে ইঙ্গিত করেন বলে দাবি মিমির।

এরপর মিমি সিদ্ধান্ত নেন অভদ্র ওই চালককে শিক্ষা দিতেই হবে। তিনি তাড়া করে ট্যাক্সিটিকে থামান। তার পর নিজের গাড়ি থেকে নেমে ড্রাইভারটিকে ধমকান। ইতিমধ্যেই ভিড় জমে যায়। পরে মিমি গড়িয়াহাট থানায় অভিযোগও জানান। রাতেই দেবা যাদব নামের ওই চালককে গ্রেফতার করা হয়। তাকে আজ কোর্টেও তোলা হয়। বৃষ্টিভেজা রাতে কেন এরকম দুঃসাহসিকতার কাজ করলেন মিমি?

মিমি জানান, তাঁর সঙ্গে দেহরক্ষী ছিল না। তবুও যে তিনি ঝুঁকি নিয়ে রাস্তায় নেমে ওই অভদ্র ট্যাক্সি চালককে সবক শেখালেন তাঁর কারণ তিনি মনে করেন এটা তাঁর কর্তব্য। কেননা, অন্য কোনও মহিলা যখন ওই ট্যাক্সিতে উঠবেন তখন তিনিও বিপন্ন হবেন। সেটা যাতে না হয় তা বন্ধ করার জন্যই তিনি এতটা বেপরোয়া হয়ে উঠে ট্যাক্সিটিকে ধরার জন্য তাড়া করেন এবং রাস্তায় নেমে চালকটিকে ধমকান। বিষয়টির দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য পুলিশকেও ধন্যবাদ দেন তিনি।

 

 

 

 

 

জি নিউজ

প্রতিবেদনটি জনস্বার্থে প্রকাশ করা হলো

image_pdfimage_print